মাস্ক পরা ‘দেশপ্রেম’, আমার চেয়ে দেশপ্রেমিক কেউ নন: ট্রাম্প

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে যুক্তরাষ্ট্রে ১ লাখ ৪০ হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্ত হয়েছেন লাখ লাখ মানুষ। শুরু থেকেই এই ভাইরাসকে গুরুত্ব না দেয়া দেশটির প্রেসিডেন্টের সমালোচনা হচ্ছে বিস্তর। যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসের বিস্তার শুরু হওয়ার তিন মাস আগেই নাকি প্রেসিডেন্টকে সতর্ক করা হয়েছিল। সেই সতর্কতার ধার ধারেননি ‘একরোখা’ ডোনাল্ড ট্রাম্প। তারই খেসারত দিতে হচ্ছে আমেরিকানদের। লাশের সারি বেড়েই চলেছে।

আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন সামনে রেখে ট্রাম্পের সমালোচনা আরও জোরদার হচ্ছে। সেটি আচ করতে পেরে নিজেকে খোলনচলে বদলানোর চেষ্টায় আছেন ট্রাম্প। তারই প্রমাণ পাওয়া গেল তার সাম্প্রতিক কর্মকাণ্ডে।

ট্রাম্প মাস্ক পরার ঘোর বিরোধী ছিলেন। নিজে মাস্ক পরতেন না। এখন পরছেন। সম্প্রতি বলেছেন, মাস্ক পরা দেশপ্রেম। মাস্ক পরে ও সামাজিক দূরত্ব মেনে করোনাভাইরাসকে মোকাবেলা করারও প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন তিনি।

সোমবার নিজের মাস্ক পরিহিত একটি ছবি টুইট করেছেন ট্রাম্প। সেখানে করোনাভাইরাসকে ‘অদৃশ্য চীনা ভাইরাস’ হিসেবে উল্লেখ করেছেন তিনি।

মাস্ক পরার সাফাই গেয়ে ট্রাম্প টুইটারে লিখেছেন- ‘অদৃশ্য এই চীনা ভাইরাসকে হারাতে আমাদের প্রচেষ্টায় আমরা ঐক্যবদ্ধ। অনেকে মানুষ বলেন যে, যখন আপনি সামাজিক দূরত্ব মানতে পারেন না তখন মাস্ক পরাটেই স্বদেশপ্রেম। আমার চেয়ে দেশপ্রেমী কেউ নেই, আমি আপনাদের প্রিয় প্রেসিডেন্ট!’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সর্বশেষ খবর