শিশুকে অপহরণ তারপর হত্যা, আটক ১

গাজীপুর জেলার কোনাবাড়ীতে ১০ লাখ টাকা মুক্তিপণ না পেয়ে আলিফ হোসেন (৬) নামের এক শিশুকে হত্যা করেছে অপহরণকারীরা। শনিবার রাতে উপজেলার পারিজাত গ্রামের আমতলা এলাকার একটি তুলার গোডাউন থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

নিহত আলিফ হোসেন একই এলাকায় ফরহাদ হোসেনের ছেলে। এ ঘটনায় সাগর হোসেন নামের এক অপহরণকারীকে আটক করেছেন র‌্যাব সদস্যরা।

কোনাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. এমদাদ হোসেন জানান, ‘নিহত আলিফ হোসেন গত ২৯ এপ্রিল বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে নিখোঁজ হয়। পরের দিন রাতে নিখোঁজ শিশুর দাদা রাহামুদ্দিনের মোবাইলে ফোন করে আলিফ হোসেনকে অজ্ঞান করে রাখা হয়েছে বলে জানান অপহরণকারীরা । এ সময় তারা ১০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করেন।

অপহরণকারীরা জানায়, মুক্তিপণের টাকা দিলেই শিশুটিকে সুস্থ অবস্থায় ফেরত দেওয়া হবে। এরপর অপহরণকারীরা মোবাইল ফোন বন্ধ করে দেন।

তারপর, শুক্রবার সকাল ১১টার দিকে আবারও অন্য একটি মোবাইল নম্বর থেকে ফোন দিয়ে আলিফের পরিবারের কাছে মুক্তিপণের টাকা দাবি করেন অপহরণকারীরা। এ সময় আলিফ হোসেনের বাবা মুক্তিপণের টাকা দেওয়ার কথা স্বীকার করে কৌশলে বিষয়টি গাজীপুর র‌্যাব-১ অফিসের কর্মকর্তাদের জানান।

পরে র‌্যাব-১ সদস্যরা শনিবার রাতে অভিযান চালিয়ে সাগর নামের এক যুবককে আটক করেন। যুবকের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী ফরহাদ হোসেনের বাড়ীর তিনতলার একটি তুলার গোডাউন থেকে আলিফ হোসেনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সর্বশেষ খবর