সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে বাংলাদেশের যেসব জেলায় কাল ঈদ

আগামীকাল রবিবার (২৪ মে) সৌদি আরবে পবিত্র ঈদুল ফিতর পালিত হবে। সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলায়ও রোববার পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপন হবে।

বরিশালঃ প্রতিবার জাঁহাগীরিয়া শাহ সুফি মমতাজিয়া মতাদর্শীরা সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে রোজা পালন, পবিত্র ঈদুল ফিতর ও আজহা উদযাপন করেন।

শরীয়তপুরঃ সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপন করবে শরীয়তপুরের সুরেশ্বর দরবার শরিফের ভক্ত ও মুরিদানসহ ৩০টি গ্রামের কয়েক হাজার মানুষ।

চাঁদপুরঃ প্রতিবারের ন্যায় চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ, মতলব উত্তর, মতলব দক্ষিণ ও ফরিদগঞ্জের ৪০টি গ্রামে সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপন করা হবে।

আরো পড়ুন : চাঁদ দেখা যায়নি, সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যে ঈদ রবিবার

শেরপুরঃ শেরপুরের চারটি উপজেলার আটটি এলাকায় সৌদি আরবের সঙ্গে রোজা পালন ও ঈদ উদযাপন করা হয়। এর মধ্যে নকলা উপজেলার চরকৈয়া গ্রামে হয় সবচেয়ে বড় জামাত। চরকৈয়া গ্রামের একটি বিশেষ তরিকার অনুসারীরা রোববার ঈদ উদযাপন করবেন।

পটুয়াখালীঃ অন্যান্য জেলার মতো পটুয়াখালী সদর, বাউফল, গলাচিপা ও কলাপাড়ার ৩০টি গ্রামের অন্তত ৫০ হাজার মুসলমান রোববার পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপন করবেন। সৌদি আরবের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে ১৯২৮ সাল থেকে হানাফি মাজহাবের অনুসারী প্রায় ৫০ হাজার মুসলমান রোজা রাখা শুরু করেন। এরা চট্টগ্রামের এলাহাবাদ সুফিয়া ও বদরপুর দরবার শরিফ এবং চানটুপির অনুসারী হিসেবে পরিচিত।

ফরিদপুরঃ ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা ও বোয়ালমারীতে রোববার পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপিত হবে। যুগ যুগ ধরে চট্টগ্রামের হজরত ইয়াছিন মিয়ার অনুসারীরা সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে রোজা পালন, পবিত্র ঈদুল ফিতর ও আজহা উদযাপন করে আসছেন।

ঝিনাইদহঃ ঝিনাইদহের হরিণাকুন্ডুর ১০ গ্রামে রোববার পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপন হবে। সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে প্রতি বছরই পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপন করেন তারা।

মাদারীপুরঃ মাদারীপুরের চারটি উপজেলার ৩০ গ্রামের প্রায় ৪০ হাজার মানুষ রোববার পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপন করবে। উদযাপনকারীরা সবাই সুরেশ্বর পীরের মুরিদ। সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে পবিত্র ঈদুল ফিতর-আজহা উদযাপন করেন তারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সর্বশেষ খবর